২ কোটি ৩০ লাখ টাকা না দিলে সেক্স টেপ ফাঁস করে দেবো

hancha

১৩৭০০ পাউন্ড দাও, তা না হলে তোমার সেক্স টেপ ফাঁস করে দেবো’ বলে যুক্তরাষ্ট্রের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম স্নাপচ্যাটের তারকা জুলিয়েনা গোডার্ডকে হুমকি দিয়েছেন ফিটনেস মডেল হেনচা ভোইগত (৩১)। এ জন্য তাকে বিচারের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।

মডেল হেনচা ভোইগত হলেন প্রিমিয়ার লীগ তারকা সার্জি অঁরির (২৬) প্রেমিকা। ২ কোটি ৩০ লাখ পাউন্ডের টটেনহ্যাম ডিফেন্ডার অঁরির সঙ্গে প্রেমের পরিণতিতে তাদের রয়েছে একটি সন্তান।

সেই মডেল হেনচা ভোইগতকে এবার এই মাসেই যুক্তরাষ্ট্রে বিচারের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।

লন্ডনের একটি ট্যাবলয়েড পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ জানাচ্ছে, মডেল হেনচা ভোইগতর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ আনা হয়েছে।

উল্লেখ্য, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে মডেল হেনচা ভোইগতর রয়েছেন ৫ লাখ ৫০ হাজার অনুসারী। সেখানে তিনি পরিচিত ‘ইয়েসজুলজ’ নামে। যুক্তরাষ্ট্রের রিয়েলিটি শো ওয়াগস মিয়ামিতে তিনি অল্প সময়ের জন্য অংশ নিয়েছিলেন।

তার বিরুদ্ধে যৌনতা ব্যবহার করে অর্থ আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। প্রসিকিউটররা তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ এনেছেন তাতে বলা হয়েছে, মডেল হেনচা ভোইগতের হাতে গোডার্ডের এক্স-রেটেড অনেক ছবিও আছে।

তিনি তার সেক্স টেপ প্রকাশ করে দিতে চান। তার হাতে যে সেক্স টেপ আছে তার প্রমাণ হিসেবে তিনি গোডার্ডের সহকারীর কাছে বেশ কিছু এক্স-রেটেড বা রগরগে ছবি পাঠিয়েছেন।

এ নিয়ে তদন্তে নেমেছে মিয়ামি বিচ পুলিশ। তারা যেসব অভিযোগ এনেছে তাতে দেখা গেছে, ওই সেক্স টেপ থেকে মুক্তি পেতে গোডার্ডের কাছে ১৮০০০ ডলার বা ১৩৭০০ পাউন্ড দাবি করেছেন মডেল হেনচা ভোইগত ও তার সাবেক প্রেমিক ভিক্টর। অর্থ পরিশোদের জন্য গোডার্ডকে সময় দেয়া হয়েছিল ২৪ ঘন্টা।

এমন হুমকি পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে পুলিশের দ্বারস্থ হন গোডার্ড। এক পর্যায়ে তিনি মডেল হেনচা ভোইগত ও তার প্রেমিক ভিক্টরের সঙ্গে একটি ভুয়া বৈঠকের আয়োজন করেন।

সেই বৈঠকে অংশ নিতে তারা দু’জন উপস্থিত হন একই গাড়িতে। তাতে বসা অবস্থায় পুলিশ তাদেরকে আটক করে। এরপর তারা নিজেদের নির্দোষ দাবি করেছেন।

মডেল হেনচা ভোইগত বলেছেন, তিনি গোডার্ডকে শুধুই সাহায্য করতে চাইছিলেন। কারণ একবার তার একটি সেক্স টেপ ফাঁস হয়ে গেছে।

এ অবস্থায় এফবিআইয়ের সহায়তায় মডেল হেনচা ভোইগতের মোবাইল ফোন ক্র্যাক করে কর্তৃপক্ষ। বিশ্লেষকরা বিশ্লেষণ করে দেখতে পান তার ও ভিক্টরের মধ্যে যে অসামঞ্জস্যপূর্ণ কথাবার্তা হয়েছে তা মুছে দেয়ার চেষ্টা করেছেন মডেল হেনচা ভোইগত।

ওদিকে তাদেরকে গ্রেফতারের পর পরই অনলাইনে ফাঁস হয়ে যায় মডেল হেনচা ভোইগতের সেক্স টেপ। এর সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে আইভরিকোটের অঁরিকে আটক করে পুলিশ।

এ ঘটনা ঘটে যে রাতে তার দল ম্যান ইউনাইটেডকে পরাজিত করে তার আগের রাতে। ওই ম্যাচে এ কারণে খেলতে পারেন নি অঁরি।

তিনি মডেল হেনচা ভোইগতের সঙ্গে ছোট্ট মেয়েকে নিয়ে বসবাস করেন হার্টফোর্ডশায়ারে। তিনি তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করেন। তাকে কোনো অভিযোগ ছাড়াই পরে ছেড়ে দেয়া হয়।