হাতকড়া বাঁধা হাতে আঙুল দিয়ে শ্বেতাঙ্গ শ্রেষ্ঠবাদের প্রতীক দেখিয়েছে

dog

ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে হামলাকারী অস্ট্রেলীয় যুবককে যখন শনিবার আদালতে হাজির করা হয়েছে, তখন তার মুখে ছিল আত্মতৃপ্তির দেঁতো হাসি।

এসময় তার চেহারায় কোনো অনুশোচনা দেখা যায়নি।-খবর আল-জাজিরার

ব্রেনটন ট্যার‌্যান্ট নামের ২৮ বছর বয়সী ওই শ্বেতাঙ্গ ঘাতককে হত্যার অভিযোগে শনিবার ক্রাইস্টচার্চ ডিস্ট্রিক্ট আদালতে হাজির করা হয়েছে।

আগামী ৫ এপ্রিল পর্যন্ত তাকে রিমান্ডে নেয়া হয়েছে, এরপর দক্ষিণ আইল্যান্ড সিটি হাইকোর্টে হাজির করা হবে।

আদালতে হাতকড়া পরা অবস্থায় একটি সাদা কারাপোশাক পরা ছিলেন তিনি। এসময় তার মুখ থেকে কোনো কথা বের হয়নি।

হামলাকারী ওই যুবকের জন্য নিয়োগকৃত আইনজীবী তার জামিন চেয়ে কোনো আবেদন করেননি।

ঘাতক অস্ট্রেলীয় হাতকড়া বাঁধা হাতে আঙুল দিয়ে শ্বেতাঙ্গ শ্রেষ্ঠবাদের প্রতীক দেখিয়েছেন।

এক মিনিটের মতো সময় এজলাসে ছিলেন তিনি। এই সময়ে তার বিরুদ্ধে খুনের অভিযোগ পড়ে শোনান বিচারক পল কেলার।

ট্যারেন্টকে এজলাস থেকে নিয়ে যাওয়ার পর বিচারক বলেন, এই মুহূর্তে মাত্র একটি অভিযোগ আনা হয়েছে আসামির বিরুদ্ধে, কিন্তু এটা ধরে নেওয়ার যৌক্তিক কারণ রয়েছে যে তার বিরুদ্ধে আরও অভিযোগ রয়েছে।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে এলোপাতাড়ি গুলি করে বহু লোককে হতাহত করেন তিনি।