অবশেষে সেই ঘাতক চালক গ্রেফতার

ohona

গত ৮ জানুয়ারি অহনা পুরান ঢাকা থেকে তার খালাতো বোনকে সঙ্গে নিয়ে উত্তরায় নিজ বাসভবনের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন। ফেরার পথে উত্তরার কাবাব ফ্যাক্টরি থেকে কিছুটা সামনে সাত নম্বর সেক্টরের পূর্ব মাথায় একটি বেপরোয়া গতির পাথর বোঝাই ট্রাক ধাক্কা দিয়ে অহনার প্রাইভেটকারের ক্ষতি করে।

অহনা নিজের গাড়ির ক্ষতি হয়েছে দাবি করে ট্রাক ড্রাইভারকে নামতে বললে ইচ্ছাকৃতভাবে আবারো অহনার কারটিকে জোরে ধাক্কা দেয় চালক।

রাজধানীর উত্তরার ৭নং সেক্টরের একটি রাস্তায় পাথর বোঝাই একটি ট্রাক বেপরোয়া গতিতে এসে অভিনেত্রী অহনার গাড়িকে ধাক্কা দেয়। বিষয়টি প্রতিবাদ করায় অহনাকে ঝুলিয়ে সেই ট্রাক ছেড়ে দেয়।

পরে হঠাত ব্রেক করলে অহনা ছিটকে পড়ে মারাত্মকভাবে আহ হন। পরে তাকে উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখন তিনি চিকিৎসাধীন উত্তরার একটি হাসপাতালে।

এ ঘটনায় অহনার খালাতো বোন লিজা মিতু বাদী হয়ে ৯ জানুয়ারি উত্তরা থানায় মামলা করেছেন। মামলা নং ২৩০(৫) ১। এমন অমানবিক ঘটনার পরও সহমর্মিতা প্রকাশ করেননি ট্রাকের ড্রাইভার ও মালিক। বরং মামলা করায় অহনা ও তার পরিবারকে নানান হুমকি দেয়া হচ্ছে বলে জানান মিতু।

সেই মামলার ভিত্তিতে শনিবার  সকালে সেই ট্র্যাক ড্রাইভার মোঃ সুমন ও তার হেল্পার মোঃ রুমনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিশ্চিত করেন এই মামলার প্রধান তদন্ত কর্মকর্তা হুমায়ূন কবির।

তিনি  জানান, হেল্পারকে গতকাল রাতেই ধরেছি। এরপর আজ সকাল ৭টার দিকে ট্র্যাক ড্রাইভার সুমনকে আশুলিয়া থেকে গ্রেপ্তার করেছি।

অহনার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে খালাতো বোন মিতু জানান, অহনার শারীরিক অবস্থা মোটামুটি ভালো। মাঝখানে শরীরের ব্যাথা কিছুটা কমেছিলো কিন্তু গতকালের পর থেকে আবারও ব্যাথা বেড়েছে।