যে কারণে মানুষ সৃষ্টিতে কান্না করেছিল মাটি, জানলে আপনিও কাঁদবেন

matiযে কারণে মানুষ সৃষ্টিতে কান্না করেছিল মাটি, জানলে আপনিও কাঁদবেন। ‘মানুষ সৃষ্টিতে’ কান্না করেছিল মাটি- আল্লাহ রাব্বুল আলামিন মানুষ সৃষ্টির ব্যাপারে ফেরেশতাদের সঙ্গে পরামর্শ করলেন। দুনিয়াতে তাঁর প্রতিনিধিত্ব করার জন্য হজরত জিবরিল আলাইহিস সালামের মাধ্যমে হজরত আদম আলাইহিস সালামকে মাটি দ্বারা সৃষ্টি করেন।জেনে নিন গোনাহ ও আজাব দূর করার আমল ‘সাদাকাহ। যে কারণে মানুষ সৃষ্টিতে কান্না করেছিল মাটি।

যে মাটি দ্বারা বনি আদমকে সৃষ্টি করা হলো, সে মাটির অনুভূতি কী ছিল? তা তুলে ধরে হলো- হজরত ওহাব ইবনে মুনাব্বিহ রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, আল্লাহ তাআলা যখন হজরত আদম আলাইহিস সালামকে সৃষ্টি করার ইচ্ছা পোষণ করলেন, তখন মাটিকে অবহিত করে বললেন, হে মাটি!

আমি তোমার থেকে এমন এক জাতি সৃষ্টি করবো, যাদের মধ্যে আমার অনুগত ও নাফরমান উভয় ধরনের লোক হবে। যে আমার আনুগত্য করবে, আমি তাকে জান্নাতে প্রবেশ করাবো।পরকালের সফলতা লাভে যৌবনের ইবাদতের গুরুত্ব !!

আর যে আমার নাফরমানি করবে, তাকে আমি জাহান্নামে নিক্ষেপ করবো। তখন মাটি বলল, হে আল্লাহ! আপনি আমার দ্বারা এমন জাতি সৃষ্টি করবেন, যারা জাহান্নামের আগুনে জ্বলবে।

আল্লাহ তাআলা বললেন, হ্যাঁ। তখন মাটি কাঁদতে শুরু করে। তার কান্নার অশ্রুধারা থেকেই পৃথিবীতে ঝর্ণাসমূহ বয়ে চলেছে। সুতরাং যে মাটি জাহান্নামের ভয়ে ক্রন্দন করছে।

আল্লাহ তাআলা মাটির ক্রন্দন থেকে শিক্ষা নিয়ে উম্মাতে মুসলিমাকে অনুগত বান্দা হওয়ার তাওফিক দান করুন।-এমটিনিউজ