ভবিষ্যৎতে নুসরাতের মত আরেক নুসরাতকে জীবন দিতে হবে এই ধর্ষকের জন্য

dhorsok

মাদরাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে নিয়ে বিকৃত মন্তব্য করে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মামুন বিল্লাহ।

এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রীতিমতো ঝড় শুরু হয়েছে।

তোপের মুখে ওই ছাত্র তার ফেইসবুক আইডি ডিঅ্যাকটিভ করে রেখেছেন।

অনেকেই ওই ছাত্রকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে পোস্ট দিচ্ছেন।

nusrat (4)

জানা গেছে, একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে সেই মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাতকে নিয়ে নিউজ করা হলে সেখানে রাবি ছাত্র মামুন বিল্লাহ কমেন্ট করেন- ‘মেয়েটা কিন্ত জোস ছিল, মালটা ধর্ষণ করার মতোই ছিল’

রাবি ছাত্রের এমন বিকৃত মন্তব্যে অনেকেই তাকে ভবিষ্যৎ ধর্ষক হিসেবে চিহ্নি করে পোস্ট দিচ্ছেন। এমন মানসিকতার জন্য তাকে রীতিমতো তুলোধনা করা হচ্ছে।

মইনুল ইসলাম নামে এক ছাত্র তার ফেইসবুকে লিখেছেন, এমন মানসিকতার একটি ছেলে কিভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে? তাকে অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের দাবি জানান তিনি।

dhosok

মর্তুজা বশির নামে এক ছাত্র মামুন বিল্লাহকে ভবিষ্যৎ ধর্ষক উল্লেখ করে লিখেন, আরেকটি অঘটন ঘটার আগেই সম্ভাব্য এই ধর্ষককে শাস্তি দেয়া হোক!

ফুয়াদ নাসের লিখেছেন, মেনে নিতে কষ্ট হয় এই ছেলেটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে!

ইফতেখার হোসেন লিখেছেন, লজ্জা লাগছে আমি এই বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করি।

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে এমন নিচু মনমানসিকতা কি করে হয়!

এমন নানা কমেন্টে রাবি ছাত্র মামুনকে তুলোধনা করা হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে।