বজ্রপাতে ১৬ জনের মৃত্যু

thanderরোয়ান্ডার গির্জায় একটি মাত্র বজ্রপাতে ১৬ জন হয়েছে। আহত হয়েছেন অন্তত ১৪০ জন। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শনিবার রোয়ান্ডার দক্ষিণে পাহাড়ি শহর নিয়ারুগুরুর সেভেন্থ-ডে অ্যাডভেন্টিস্ট চার্চে এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা যায়।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, নিয়ারুগুরু-এর সেভেন্থ-ডে অ্যাডভেন্টিস্ট গির্জায় বজ্রপাত প্রতিরোধ করার মতো প্রয়োজনীয় যন্ত্র বা ডিভাইস, যেমন বজ্রপাত নিরোধক দণ্ড নেই। আর এই কারণেই ভয়াবহ এই প্রাণহানির ঘটনাটি ঘটেছে।

বজ্রপাত প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থার অভাব স্থানীয় প্রায় সব গির্জাতেই রয়েছে বলেও জানিয়েছে বিবিসি। দেশটির কর্তৃপক্ষ বলছে, বজ্রপাত বিষয়ে জনসচেতনার অভাবও রয়েছে।

দুই সপ্তাহের কম সময়ের মধ্যে রোয়ান্ডায় ভবন নির্মাণ নীতিমালা এবং শব্দ দূষণ প্রতিরোধে ব্যর্থ হবার দায়ে ৭০০র বেশি গির্জা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, রোয়ান্ডার দক্ষিণাঞ্চলীয় পাহাড়ি শহর নিয়ারুগুরু জায়গাটি বজ্রপাতসহ নানা ধরণের দুর্যোগ প্রবণ এলাকা।

স্থানীয় মেয়র হাবিটেগেকো জানিয়েছেন, নিহতদের মধ্যে ১৪জনই ঘটনাস্থলে মারা যান। বাকি দুইজন হাসপাতালে মারা যান।

এর আগে শুক্রবারেও বজ্রপাত সেখানে একজন ছাত্র মারা যায়।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে মেয়র জানিয়েছেন, চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন আহতদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

তিনি আরও বলেন, শুক্রবারে ১৮ জন শিক্ষার্থী একসঙ্গে থাকার সময় যে বজ্রপাতের ঘটে, তাতে তিনজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।