নবদম্পতির রক্তাক্ত লাশ বাড়ির উঠান থেকে উদ্ধার

las

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে নিজ বাড়ির উঠান থেকে স্বামী-স্ত্রীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার রাতে উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের আলীয়ারা গ্রাম থেকে লাশ গুলো উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন আলীয়ারা গ্রামের আছন আলীর পুত্র হারুন মিয়া (২৫) ও হারুনের স্ত্রী মোসা: মিনা আক্তার (১৯)। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য আজ মঙ্গলবার সকালে জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে, উপজেলার আলীয়ারা গ্রামের হারুনের সাথে মাত্র আড়াই মাস আগে একই ইউনিয়নের নরহা পূর্ব গ্রামের জামাল মিয়ার মেয়ে মিনা আক্তারের বিয়ে হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় প্রতিবেশিরা বাড়ির উঠানে তাদের লাশ পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। ধারণা করা হচ্ছে, দুর্বৃত্তরা তাদেরকে হত্যা করে ফেলে রেখে গেছে অথবা স্বামী স্ত্রীকে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যা করেছে। তবে স্বামী-স্ত্রী দু’জনের বুকেই দেশীয় অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

হরিপুর ইউনিয়নের রাশেদ চৌধুরী বলেন, এটা স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়া বিবাদের বিষয় না। এটি পরিকল্পিত হত্যা হতে পারে।

কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ১৯ নভেম্বর বিকালে হত্যাকান্ড ঘটার পর পরিবার থেকে কেউ পুলিশকে অবহিত করেনি এবং এ ঘটনার পর তাদের পরিবারের সবাই পলাতক আছেন।

এ ব্যাপারে সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার মুনিরুজ্জামান ফকির বলেন, সোমবার রাতে সংবাদ পাওয়ার পর নিজ বাড়ির উঠান থেকে নিহতদের লাশ উদ্ধার করা হয়। তাদের বাড়িরটি মূল সড়ক থেকে একটু নির্জনে।

লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহতদের বুকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তদন্তের ঘটনার মূল রহস্য বের হয়ে আসবে।