দেশের জন্য দরকার সহায়ক সরকারঃ এমএ বাশার

basharলিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি- এলডিপি কক্সবাজার জেলার মতবিনিময় সভা গত শক্রবার জেলার মিশুক হোটেল মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে৷জেলা এলডিপি’র আহবায়ক গোলাম কিবরিয়ার সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব মোহাম্মদ ইমরানের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এলডিপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির যুগ্ম মহাসচিব তমিজউদ্দিন টিটু,বিশেষ অতিথি যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিউল বারী রাজু,চট্রগ্রাম দক্ষিণ জেলা এলডিপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া শিমুল সহ স্থানীয় গণতান্ত্রিক যুবদল,যুব মহিলা দল,ও গণতান্ত্রিক ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ৷অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এলডিপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব এমএ বাশার ৷

জেলার মিশুক হোটেল মিলনায়তনে বিকেল চার ঘটিকায় অনুষ্ঠান শুরু হয়৷এতে প্রধান বক্তার বক্তব্যে বাশার সাংগঠনিক ভাবে তৎপর জেলা এলডিপি’র নেতাদের ভূয়সী প্রশংসা করেন৷দলীয় সভাপতি অলি আহমদ’র নেতৃত্বে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত,শিক্ষিত সমাজ গড়তে সবাইকে একসাথে কাজ করতে বলেন৷বাশার আরও বলেন দেশের গণতন্ত্র পুনরোদ্ধারে বিশদলীয় জোট প্রধান,দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ডাকে এলডিপি সভাপতি অলি আহমদ সাড়া দিয়ে যখন যে আন্দোলনে নামার নির্দেশ দিবেন তা যেন সকল নেতা-কর্মী মিলে সফল করতে পারে তার জন্য সবাইকে সদা প্রস্তুত থাকতে হবে ৷

দেশের ভালোর জন্য তিনি তও্বাবধায়ক সরকার অথবা নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের দাবি জানিয়ে বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি বঙ্গবন্ধু কন্যা৷আপনার দায়িত্ব জনগণের কল্যাণে কাজ করা৷আপনি দেশের স্বার্থে একটি নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থে আশা করি আমাদের জোটের দাবি মেনো নিবেন৷বাশার অতি দ্রুত রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান করার আহবান জানান৷প্রয়োজনে সব দলের সাথে আলোচনায় বসে রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে কাজ করতে সরকারকে আহবান জানান এমএ বাশার ৷

এদিকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তমিজউদ্দিন টিটু বর্তমান সরকারের স্বেচ্ছাচারিতার তীব্র সমালোচনা করেন৷তিনি বলেন দেশে আজ নাটক মঞ্চায়িত হচ্ছে৷দেশের প্রধান বিচারপতিকে নিয়ে তামাশার জন্য আজ বহিবিশ্বে আমাদের সুনাম ক্ষুণ্ণ হচ্ছে বলে তিনি মন্তব্য করেন৷দেশের মানুষের নাগরিক অধিকার ভোটের অধিকার নিশ্চিত করতে এলডিপি সভাপতি অলি আহমদ কর্তৃক নির্বাচন কমিশনকে দেয়া প্রস্তাবগুলো তুলে ধরে তিনি বলেন বর্তমানে কেউ একজন জাতীয় নেতা যদি থেকে থাকেন যিনি প্রকৃত দেশপ্রেমিক,দূর্নিতীমুক্ত তিনি হলেন অলি আহমেদ৷নির্বাচন কমিশন যদি এলডিপি’র প্রস্তাবগুলো মেনে নেয় তাহলে সম্মানিত হবে দেশের মুক্তিযোদ্ধারা,প্রকৃত গণতন্ত্রকামী দেশপ্রেমিক জনতারা৷অনুষ্ঠানে স্থানীয় কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের পাশাপাশি আরও বক্তব্য রাখেন শফিউল বারী রাজু,গোলাম কিবরিয়া শিমুল সহ স্থানীয় যুবদল নেতা ইমরান,ছাত্রদল নেতা মফিজুর রহমান সহ আরও অনেকে৷