এবার ড্রেনের ময়লা পানির মধ্যেও পাওয়া গেল করোনা ভাইরাস

vi

করোনা আক্রান্ত প্রথম রোগীর খোঁজ পাওয়ার কয়েক সপ্তাহ আগেই ড্রেনের ময়লা পানির মধ্যে পাওয়া গেল করোনা ভাইরাস।

একটি এলাকায় করোনা আছে কিনা, তা জানতে ঐ এলাকার সম্ভাব্য রোগীদের উপর পরীক্ষার আগে সেখানকার ড্রেনের পানি পরীক্ষা একটি গুরুত্বপূর্ণ উপায় হতে পারে বিজ্ঞানী গবেষক আভাস দিচ্ছে ৷

অনেক কোভিড-১৯ রোগীর মলে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। ফলে ড্রেনের পানি পরীক্ষা করে কোনো এলাকায় করোনা আছে কিনা, তা জানা যেতে পারে ৷

j

নেদারল্যান্ডসের এক শহরে করোনা আক্রান্ত প্রথম রোগীর খোঁজ পাওয়ার কয়েক সপ্তাহ আগেই সেই শহরের ড্রেনের পানিতে করোনা ভাইরাসের সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা ৷

তাঁরা আশা করছেন, ড্রেনের পানি পরীক্ষার মাধ্যমে আগেই করোনার উপস্থিতি জানা যেতে পারে। সোমবার এই তথ্য জানান গবেষকরা ৷ 

‘কেডাব্লিউআর ওয়াটার রিসার্চ ইনস্টিটিউট’ আমস্টারডাম বিমানবন্দর সহ আটটি শহরের ড্রেনের পানি পরীক্ষা করেছে।

এর মধ্যে ইউট্রেখট শহরের কাছে অবস্থিত আমার্সফর্ট শহরের মধ্যে প্ল্যান্টের পানিতে ৫ মার্চ করোনার সন্ধান পাওয়া যায়।

dwখবর: ডয়চে ভেলে

এর কয়েক সপ্তাহ পর ঐ শহরে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করা হয় ৷

এছাড়া গবেষণা বলছে, দরজার হাতলে পাঁচ দিন পর্যন্ত টিকে থাকতে পারে করোনা ভাইরাস।

সুতরাং, সাবধান! সব সময় পরিষ্কার রাখুন দরজার হাতল। অথবা হাত দিলে সেই হাত খুব ভালো করে ধুয়ে নিন।

নেদারল্য়ান্ডসে প্রথম করোনা ধরা পড়ে ২৭ ফেব্রুয়ারি ৷ 

mask

এদিকে সারাবিশ্বের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২ লাখ ১৫ হাজার ৪১৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

করোনাভাইরাসে বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে গিত ২৪ ঘণ্টায় স্পেনে সাড়ে ৯শ’, ইরানে শতাধিক এবং যুক্তরাষ্ট্রে প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ১৩শ’ মানুষ।

যার মধ্যে আছেন ১৮ বাংলাদেশিও। এই নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ৫৩ বাংলাদেশিসহ প্রাণহানি ৫ হাজার। আক্রান্ত ২ লাখেরও বেশি।

vi (3)

সৌদিতে মারা গেছেন আরও এক বাংলাদেশি। ভারতে আরও ১২ জনের প্রাণহানিতে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫০ জনে।

হতদরিদ্রদের পাশে দাঁড়াতে সরকার প্রধানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থ।

তবে সুখবর দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার একদল বিজ্ঞানী। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং মার্কিন কোম্পানি ইনোভিয়া ফার্মাসিউটিক্যালস যৌথভাবে উদ্ভাবিত দুটি ভ্যাকসিনের পরীক্ষা শুরু করেছে।

প্রাণীর শরীরে পরীক্ষার অনুমোদন দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এটি সফল হলেই মানবদেহে প্রয়োগ করা হবে।