এবার সিফাত উল্লাহ’র বিরুদ্ধে জার্মান আ’লীগ নেতার মামলা

munnaসামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও ইউটিউবে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার কন্যা প্রধানমমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য আর অদ্ভুত, অশ্লীল ও বেপরোয়া কথাবার্তা ছড়ানোর দায়ে অস্ট্রিয়া প্রবাসী সিফাত উল্লাহ ওরফে সেফুদার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন জার্মান আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান মুন্না।

সোমবার(২০ আগস্ট) বাংলাদেশে সময় দুপুর ১২ টার দিকে জার্মান বোন পুলিশ স্টেশনে এই মামলাটি করা হয়।

এই সময়ে সবচেয়ে আলোচিত ও সমালোচিত ব্যক্তির নাম সিফাত উল্লাহ ওরফে সেফুদা। বাংলাদেশ ও সমসাময়িক বিষয়ে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য আর অদ্ভুত, অশ্লীল ও বেপরোয়া কথাবার্তা ছড়াচ্ছেন ভার্চুয়াল জগতে। তার আক্রমণ থেকে রক্ষা পাননি জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু ও তার কন্যা প্রধানমমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দেশের গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক এবং প্রশাসনিক ব্যক্তিরা। এবং কি নিজেকে নাস্তিক দাবি করে তিনি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করেছেন। ইসলামের নবীকে নিয়েও তিনি কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। বাংলাদেশে পুলিশ ইতিমধ্যে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থার কথা জানালেও বিদেশের মাটিতে তার বিরুদ্ধে এই প্রথম কেউ মামলা করলেন।

এ ব্যাপারে মেহেদী হাসান মুন্না জানান, যে ব্যক্তি বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারকে নিয়ে গালাগালি করছে তার ছবি দিয়ে বাঙালিরা ট্রল করে মজা নিচ্ছে। ইউরোপে বসে একজন ব্যক্তিেএসব কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করছে, সেখানে আমাদের অনেক নেতা আছেন ইউরোপে তারা কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। আমি একজন বাঙালি ও বঙ্গবন্ধু প্রেমিক হিসেবে আদর্শগত জায়গা থেকে তার বিরুদ্ধে মামলা করেছি। আমার মামলার প্রেক্ষিতে জামার্ন পুলিশ অস্ট্রিয়া পুলিশকে নোটিস করেছে। তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, বর্তমানে সিফাত উল্লাহ মানসিক রোগে আক্রান্ত এমন দাবি করেছে তার পরিবার। কিন্তু আমি বিদেশের অনেক বড় ডাক্তারের সাথে কথা বলেছি তারা বলেছেন এই লোক কেনভাবে সেরকম কোনো রোগে আক্রান্ত নয়। কোনো পাগল এতো পুরাতন ইতিহাস মনে রাখার কথা নয়। সে এসব পরিকল্পিত ভাবে করছে। তাকে আইনের আওতায় আনতে হবে। কেউ তার বিরুদ্ধে লড়তে না আসলেও আমি লড়ে যাব।