এবার সবাইকে কাঁদিয়ে চলে গেলেন জেরিন

jerinজাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন জাবির ইংরেজি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (৪৬তম ব্যাচ) মেধাবী শিক্ষার্থী ফারিহা নুসরাত জেরিন।

গতকাল সোমবার রাত ২টার দিকে রাজধানীর সেন্ট্রাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। ফারিহা নুসরাত জেরিনের গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায়।

পরিবারের সাথে ঢাকার সেন্ট্রাল রোডে থাকতেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের জাহানারা ইমাম হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি।

জেরিনের সহপাঠী ও হাসপাতাল সুত্রে জানা যায়, এলার্জিজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন জেরিন। পরবর্তীতে চিকেন পক্সে আক্রান্ত হন তিনি। গত ৭ এপ্রিল গুরুতর অসুস্থ হলে বিকেলে তাকে সেন্ট্রাল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে তাকে নিবীড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। এলার্জির ইনজেকশন এর ওভারডোজের কারণেই অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণ শুরু হয়েছিল তার, ১০ দিনে ৮০ ব্যাগ রক্তের প্রয়োজন ছিল।

রক্ত জোগাড় হয়ে গিয়েছিল কিন্তু তার আগেই সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন তিনি।

আজ মঙ্গলবার বাদ জোহর জানাজার পর আজিমপুর কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন তিনি। তার মৃত্যুতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

গভীর শোক প্রকাশ করে জাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম জেরিনের পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনদের প্রতি সমবেদনাজ্ঞাপন ও বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।