এবার পাঁচ দিনের যে কঠিন আল্টিমেটাম দিল বদি

bodi

ইয়াবা কারবারিদের আত্মসমর্পনের জন্য আগামী ৫ দিনের মধ্যে নাম জমা দেওয়ার আল্টিমেটাম দিয়েছেন সাবেক এমপি আব্দুর রহমান বদি।

শুক্রবার টেকনাফ চৌধুরী পাড়ায় নিজ বাসভবনে তার স্ত্রী কক্সবাজার-৪ আসনের নব নির্বাচিত এমপি শাহিনা আক্তার চৌধুরী (শাহীন আক্তার)’র সাথে সাক্ষাৎ করতে আসা এলাকাবাসী ও দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি এ আহবান জানান।

ছেলে হারা মা বাবা, স্বামী হারা স্ত্রী ও বাবা হারা সন্তানদের কথা চিন্তা করে এ উদ্যোগ নিয়েছেন। সরকারের সাথে আলাপ করে তালিকাভূক্ত ও তালিকার বাইরে থাকা ইয়াবা ব্যবসায়ীদেরকে ৫ দিনের মধ্যে যোগাযোগ করতে আল্টিমেটাম দেন তিনি।

পাশাপাশি তিনি টেকনাফ হতে ইয়াবার বদনাম ঘোচাতে সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। এ সময় টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান জাফর আহম, ভাইস চেয়ারম্যান মো: রফিক উদ্দিন, ইউ পি চেয়ারম্যান মো: আজিজ উদ্দিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

গত বছর সারা দেশে মাদকবিরোধী অভিযান চলাকালে আলোচনার তুঙ্গে ছিলেন টেকনাফের এমপি আবদুর রহমান বদি। সামাজিক গণমাধ্যম ও মিডিয়াতে তাকে ঘিরেই ছিল আলোচনা-সমালোচনা।

কেউ কেউ তখন বলেছেন, টেকনাফ দিয়ে মিয়ানমার থেকে আসা মরণনেশা ‘ইয়াবা গেট’ বন্ধ করতে হলে স্থানীয় ওই এমপির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।

সেসময় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর (ডিএনসি) থেকে ১৪১ জনের তালিকা দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) পাঠানো হয়। ওই তালিকায় গডফাদার হিসেবে বদি ও তার পাঁচ ভাইয়ের নাম রয়েছে। তালিকার দ্বিতীয় পৃষ্ঠার একটি প্যারায় উল্লেখ করা হয়, মাননীয় সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদি দেশের ইয়াবা-জগতের অন্যতম নিয়ন্ত্রণকারী।

তার ইশারার বাইরে কিছুই হয় না। দেশের ইয়াবা আগ্রাসন বন্ধের জন্য তার ইচ্ছাশক্তিই যথেষ্ট।