আর্জেন্টিনার ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বড়…

argentinaকী হওয়ার কথা ছিল আর কী হলো! স্বপ্নেও বোধহয় কোনো আর্জেন্টাইন সমর্থক এমন ফলাফল কল্পনা করেনি। স্পেনের বিপক্ষে তুলনামূলক কম শক্তির দল নিয়ে খেলতে নেমে ১-৬ গোলের লজ্জার হার উপহার পেল সাম্পাওলির দল। শুধু কী তাই! আর্জেন্টিনার ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বড় হারের নজির।

১৯৫৮ সালে সুইডেন বিশ্বকাপে প্রথমবার ১-৬ গোলে চেকোশ্লোভাকিয়ার কাছে হেরেছিল আর্জেন্টিনা। সেটাই ছিল আর্জেন্টিনার প্রথম ৫ গোলের ব্যবধানে হারের ঘটনা। ৫১ বছর পর ২০০৯ সালে আবারও ফিরে আসে ১-৬। এবার বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনাকে ৬-১ গোলের ব্যবধানে হারায় পুঁচকে বলিভিয়া। এবারও সেই একই ব্যবধানে আর্জেন্টিনাকে হারালো স্পেন।

ইতিহাস বলে ৫ গোলের ব্যবধানে আরও দুবার পরাজয়ের স্বাদ পেয়েছিল আলবিসেলেস্তারা। ১৯৫৯ সালে উরুগুয়ে ৫-০ গোলে হারায় আর্জেন্টনাকে। অপর হারটি আসে আর্জেন্টিনার মাটিতেই। ১৯৯৩ সালে আর্জেন্টাইনদের তাদের মাটিতেই ০-৫ গোলের লজ্জার পরাজয় উপহার দেয় ল্যাটিন আমেরিকার আরেক দল কলম্বিয়া। বিশ্বকাপের আগে নিঃসন্দেহে এটা আর্জেন্টিনার জন্য অনেক বড় সতর্কবার্তা। সাম্পাওলির দল এই হারকে কীভাবে কাটিয়ে ওঠে সেটিই দেখা বিষয়।