আমি জীবিত, আমিই আসল প্রেসিডেন্ট

burahi

প্রেসিডেন্ট মারা গিয়েছেন৷ তাঁর জায়গায় অবিকল তাঁরই মতো দেখতে এক নকল ব্যক্তি প্রেসিডেন্ট সেজে বসে আছে৷ বেশ কয়েকদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই নিয়ে প্রচুর জল্পনা ছড়ায়৷ ব্রিটেনে বসে থাকা প্রেসিডেন্টের কানেও খবরটা পৌছঁয়৷ এরপর এক ভিডিও বার্তায় জানান, তিনি বেঁচেই আছেন৷ কোনও ভেকধারী তাঁর জায়গা দখল করেনি৷

সম্প্রতি নাইজেরিয়ায় গুজব ছড়ায় যে দেশটির প্রেসিডেন্ট মুহাম্মাদু বুহারি মারা গেছেন।  তবে রবিবার বুহারি সবার সামনে এসে নিজেই জানালেন গুজবের কথা। বললেন, ‘আমিই আসল বুহারি।’

২০১৫ সাল থেকেই নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্টের দায়িত্বপালন করছেন বুহারি। আগামী ফেব্রুয়ারিতে আবারও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বুহারি। ২০১৭ সালে তিন মাসের জন্য স্বাস্থ্য ছুটিতে ছিলেন বুহারি। কিন্তু সুস্থ হয়ে এসে জানান, খুব বড় কোনও অসুখ ছিলে না তার।

তবে সেই বছরের শেষ দিক থেকেই বুহারির মৃত্যুর গুজব ছড়িয়ে পড়তে থাকে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপির অনুসন্ধানে এসব তথ্য উঠে আসে। তারা জানায়, বুহারির পূর্ববর্ত প্রেসিডেন্ট গুডলাকের সহযোগীও এই গুজব ছড়িয়েছেন।

সামাজিক মাধ্যমের পোস্টগুলোতে বলা হয়, তার ‘ক্লোন’কৃত কেউ দেশ চালাচ্ছেন। ফেসবুক ইউটিউব টুইটারে ছড়িয়ে পড়া এমন গুজব দেখা হয়ে ৫ লাখেরও বেশিবার।

এএফপি জানায়, ইনডেজিনিয়াস পিপল অব বিয়াফ্রার সভাপতি নামদি কানুও এই গুজব ছড়ান। দুটি ছবি দিয়ে তিনি মন্তব্য করেন যে বুহারি ডানহাতি, কিন্তু বাম হাত ব্যবহার করছেন। অর্থাৎ তিনি ‘আসল’ নন।

এই গুজব ছড়ানোর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়েছে হলিউডের বিখ্যাত চলচ্চিত্র ‘ফেসঅফ’র দৃশ্যও।

বর্তমানে জাতিসংঘের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সম্মেলনে অংশ নিতে পোল্যান্ডে অবস্থান করছেন বুহারি। সেখান থেকেই ভিডিও বার্তায় নিজের জীবিত থাকার বিষয় নিশ্চিত করেন নাইজেরীয় প্রেসিডেন্ট।

তিনি বলেন, ‘আমার মৃত্যুর গুজব ছড়ানোর বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। আসলে অনেকে চেয়েছিল যেন আমি ‍অসুস্থ অবস্থায় মারা যাই। অনেকে ভাইস-প্রেসিডেন্টের সঙ্গে যোগাযোগও করেছেন। তবে আমি নিশ্চিত করছি, আমিই ‘আসল’ বুহারি।’