আজ থেকে শুরু হল মিরাজের নতুন সংসার জীবন

miraj

ব্যক্তিগত জীবনের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করেছেন জাতীয় ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পারিবারিকভাবে খুলনায় রাবেয়া আক্তার প্রীতির সঙ্গে বিয়ে হয় মিরাজের।

ঘরোয়া এই অনুষ্ঠানে দুই পরিবারের ঘনিষ্টজনরা উপস্থিত ছিলেন। সেখানে সাংবাদিকদেরও প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি।

পরিবারের সদস্যরা জানান, নিউজিল্যান্ড সফর শেষে দেশে ফিরেই আকদটা সেরে রাখার কথা ছিলো মিরাজের। কনে রাবেয়া আখতার প্রীতির সঙ্গে মিরাজের পরিচয় আরো ৬ বছর আগে।

মিরাজ-প্রীতির মধ্যে পরিচয় থাকলেও প্রেমের সম্পর্ক ছিলো না। মিরাজের নববধূ প্রীতির বাবা হেলাল হোসেন একজন চাকুরিজীবী।

প্রীতি খুলনা সরকারি বিএল কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। কনেরা দুই ভাই ও এক বোন। প্রীতি সবার ছোট।

মিরাজ জানান, তার শ্বশুর বেলাল হোসেন পেশায় একজন চাকরিজীবী। বিয়ের অনুষ্ঠান করব বিশ্বকাপের পর। তখন জানানো হবে সবাইকে।

মিরাজের বাবা জালাল উদ্দিন বলেন, দুপুর আড়াইটায় ঘরোয়া পরিবেশে দুই পরিবারের উপস্থিতিতে এ বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

মিরাজের বাবা আরো বলেন, অনেক দিন ধরেই মিরাজ বিয়ের কথা ভাবছিলেন। কিন্তু কবে করবেন, ঠিক সময় হয়ে উঠছিল না।

বিশ্বকাপের আগে পাওয়া লম্বা বিরতিটা কাজে লাগাতে চাইছে সবাই। বৃহস্পতিবার কাশিপুর মেঘনা অয়েল ডিপো সড়কের কনের বাড়িতে বিয়ে সেরে ফেলেছি।

বাইরের তেমন কাউকে বলিনি। বিয়ের অনুষ্ঠান করব বিশ্বকাপের পর। তখন জানানো হবে সবাইকে।

জানা যায়, মিরাজ ও প্রীতির প্রেমের সম্পর্ক প্রায় অর্ধযুগ ধরে।