অবশেষে সাংবাদিকদের ধুয়ে দিলেন সাকিবের স্ত্রী

Sakib

সোমবার দ্বাদশ বিশ্বকাপের জন্য বাংলাদেশ দলের জার্সি উন্মোচন আনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। যাতে দলের সহ-অধিনায়ক হওয়া সত্ত্বেও উপস্থিত ছিলেন না সাকিব আল হাসান।

যদিও এর আগের দিন বিকেলে আইপিএল ছেড়ে দেশে ফিরেন সাকিব। আর পরের দিন অর্থাৎ সোমবার ‍দুপুরে মিরপুর স্টেডিয়ামে আসেন সাকিব এবং ড্রেসিংরুমে কিছুটা সময় ব্যয় করেন।

সে সময় জার্সিসহ বিশ্বকাপের অন্যান্য পোশাক বুঝে নিয়ে সোজা স্টেডিয়াম ত্যাগ করেন জাতীয় দলের সহ-অধিনায়ক।

অথচ পূর্বনির্ধারিত সময় অনুযায়ী সোমবার বিকেলে বিশ্বকাপ জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়।

কিন্তু তাতে একপ্রকার ইচ্ছা করেই ছিলেন না সাকিব।এমনকি থাকননি বিশ্বকাপ দলের আনুষ্ঠানিক ফটোসেশনেও।

অথচ তিনি দলের সহ অধিনায়ক, মাশরাফির সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সেখানে থাকার কথা ছিল তারই।

কিন্তু তিনি থাকেননি ব্যক্তিগত কারণে। যে কারণে সবাই তার ওপর বিষেদাগার করেন।

sakib

পরবর্তীতে মঙ্গলবার সাকিব আল হাসানের স্ত্রী উম্মে শিশির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি স্ট্যাটাস দেন। যাতে তিনি ঘটনাগুলোর জন্য সাংবাদিকদের দুষেন।

শিশির তার পোস্টে লিখেছেন, ‘আমার সত্যিই সাংবাদিকদের এই ব্যাপারে কিছুই বলার নেই যে কেন তাদের সাকিব আল হাসানের ব্যাপারে এতো আপত্তিকর অবস্থান।

এটা আমাদের দোষ। আমরা কখনো তাদের দুপুর বা রাতের খাবারের জন্য দাওয়াত দিইনি কিংবা ঘণ্টার পর ঘণ্টা তাদের সাথে বসে আড্ডা দিইনি। তাদেরকে ভেতরের খবর বলিনি।’

এই বিষয়ে শিশির আরো বলেন, ‘সাকিব এই পর্যায়ে আসতে অনেক পরিশ্রম করেছে ছোটবেলা থেকেই।

বিকেএসপিতে পড়ার সময় সে শুধু ক্রিকেটেই মনোযোগ দিয়েছে, মানুষের সহানুভূতি নিয়ে সে খেলতে শিখিনি।

আমার মনে হয়, এটাই তার শেখার দরকার ছিল। এইজন্যই হয়তো তার ইতিবাচক দিকটা কম চোখে পড়ে। সে লোক দেখানোর জন্য ভালো কাজ করে না।’

দলের অফিসিয়াল ফটোসেশনে সাকিবের উপস্থিত না থাকার কারণও ব্যাখ্যা করেছেন তিনি।

বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারের স্ত্রী জানান ভুল বোঝাবুঝির কারণেই সাকিব সেখানে উপস্থিত হতে পারেননি। তার জন্য দুঃখপ্রকাশ করে বিসিবির সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের সাথে কথাও বলেছেন সাকিব।

ফটো সেশনের কথা জানিয়ে সাকিবকে যে বার্তা প্রেরণ করা হয়েছিল সেটাই তিনি বুঝতে ভুল করেছিলেন বলে জানানো হয়েছে, ‘এখন কথা উঠেছে যে সাকিব কেনো দলের বিশ্বকাপ ফটো সেশনে উপস্থিত ছিল না।

sakibপ্রথমত এটা তার ভুল যে সেখানে উপস্থিত হতে পারেনি।

তবে সে ইচ্ছাকৃতভাবে এটা করেনি। সে বার্তাটি পড়তে ভুল করেছিল।

পরবর্তীতে সংশ্লিষ্টদের কাছে দুঃখপ্রকাশ করেছে সাকিব। আমিও দুঃখিত যে সেটার প্রমাণস্বরূপ আমরা কোনো ভিডিও করিনি।’

গোনিউজ২৪