অবশেষে জানা গেল যে মামলায় গ্রেফতার হলেন ব্যারিস্টার মইনুল

moinulরংপুরে মানবাধিকার কর্মী মিলি মায়ার দায়ের করা ১০ কোটি টাকার মানহানির মামলায় ঢাকার উত্তরা থেকে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।

ডিবির যুগ্ম কমিশনার মাহাবুব আলম যুগান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত তাকে রংপুরের একটি মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রংপুরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হবে।

সোমবার রংপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আরিফা ইয়াসমিন মুক্তার আদালতে মামলা করলে আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন। রংপুরের পাবলিক প্রসিকিউটর আবদুল মালেক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলায় উল্লেখ করা হয় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন টেলিভিশন টকশো-উপস্থাপিকা মাসুদা ভাট্টিকে চরিত্রহীন বলে আখ্যায়িত করায় দেশের সব নারীকে অপমান করেছেন। নারী সমাজকে হেয়প্রতিপন্ন করে মানহানি করা হয়েছে।

তিনি এ জন্য সংক্ষুব্ধ হয়ে ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে আদালতে বিচার প্রার্থনা করে অভিযুক্ত ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের শাস্তি দাবি করেন।

এর আগে টকশোতে কটূক্তির অভিযোগে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেছেন দৈনিক আমাদের অর্থনীতির নির্বাহী সম্পাদক মাসুদা ভাট্টি।

গত রোববার দুপুরে ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মো. আসাদুজ্জামান নূরের আদালতে তিনি এ মামলা করেন।

এছাড়াও সোমবার ভোলা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও রংপুরে ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করে নারী সাংবাদিক ও নারী নেত্রিরা। এর মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মামলায়ও তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।