অবশেষে কাল থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ

montri sovaআগামীকাল ১৭ মার্চ থেকে স্কুল-কলেজ, মাদরাসাসহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রিসভা। আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

আজ ১৬ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এ তথ্য নিশ্চিত করেছন।

এর আগে রোববার (১৫ মার্চ) দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হবে কিনা সেই সিদ্ধান্ত শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে শুধু পরামর্শ দিয়েছে।

সকালে দেশে ক’রোনা ভাইরা,স আক্রান্তের প্রেক্ষাপটে সব স্কুল, কলেজ, মাদরাসা ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ চেয়ে হাইকোর্ট রিট করা হয়েছে। এ রিটে দেশের স্থল-নৌ এবং বিমানবন্দরও বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে।

গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম ক’রোনা ভা’ইরাস আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকেই স্কুল-কলেজসহ সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের দাবি উঠেছিল।

৮ মার্চ ৩ জন ক’রোনা আক্রান্ত রোগীর কথা জানালেও গতকাল শনিবার দুপুরে আইইডিসিআরের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বাংলাদেশে এখন ক’রোনাভাইরা’সে আক্রান্ত কোনো রোগী নেই।

noufelযে তিনজন ক’রোনাভা’ইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন, তাঁদের সবাই এখন করো’নামুক্ত। পরে রাতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহেদ মালিক জানান, দেশে আরও দুজন আক্রান্ত হয়েছেন। নতুন আক্রান্ত দুজনের একজন ইতালি থেকে এবং অন্যজন জার্মানি থেকে সম্প্রতি দেশে এসেছেন।

রোববার সকালে ইটালি থেকে আরও ১৫২ জন দেশে এসেছেন। তাদের এখনও স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়নি। তারা হজক্যাম্পে আছেন। তাদের তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।

দেশে ক’রোনার রোগী শনাক্তের পর বিভিন্ন মহল থেকে দাবি উঠে স্কুল-কলেজ বন্ধের। এ পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞদের মতের ভিত্তিতে স্কুল কলেজ বন্ধের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল গত সোমবার (৯ মার্চ) বিকেলে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। এর আগে সোমবার সকালে উপমন্ত্রী বলেছিলেন স্কুল-কলেজ বন্ধ করতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সুপারিশ লাগবে।

এ খবর  প্রকাশের পর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ শাখা থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়। এতে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির বরাত দিয়ে বলা হয়, ‘করোনা মোকাবেলায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। বিষেশজ্ঞদের মতামতের ভিত্তিতে স্কুল কলেজ বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে সচেতনতামূলক নির্দেশনা পাঠানো হচ্ছে।’

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনা ভাইরাস। পরে ছড়িয়ে পড়ে পুরো বিশ্বে। এখন পর্যন্ত ক’রোনা ভা’ইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বিশ্বের ১৫০টি দেশের জনগণ। ইটালিতে সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় ১৭৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। সব মিলিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫ হাজার ৮১৪ জনে দাঁড়িয়েছে।

তবে এখন পর্যন্ত ক’রোনাতে আক্রান্ত হয়ে ৭৪ হাজার ২৭৬ জন সুস্থ হয়েছেন। আকাশপথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন আছে প্রায় অর্ধেক পৃথিবী। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে, করোনা ভাইরাসের এখন কেন্দ্র হয়ে দাঁড়িয়েছে ইউরোপ। সূত্র- দৈনিক শিক্ষা